❖ নিয়ম ও আচরণ/ব্যব্হারনব্নি

কররোনোভোইরোস(ককোভভড-১৯) এর সংক্রমণ করোরের জনয ইতোভিয়োন সরকোর কততৃক একোভেক ব্যব্স্থো ব্োস্তব্োয়ন করো হরয়রে যো সমস্ত জনগণনরক অব্শ্যই কমরন চিরত হরব্। এই ভব্ভোরগ ভনয়ভমত আপরডট করো হরব্ এব্ং সকি ভব্ভেসমূহ কমরন চিোর ভনরদৃ শ্ প্রদোন করো হরয়রে।

১৮মে হতে চলাচলের নতুন নিয়ম

সাধারণভাবে ১৮মে হতে নিজ পৌরসভার(রেজ্জনে) মধ্যে কোন রকম সীমাবদ্ধতা ছাড়াই চলাচল করতে পারবে। কিন্তু কর্তৃপক্ষ চাইলে কোভিড-১৯ ভাইরাসের বিস্তার রোধের জন্য নির্দিষ্ট কোন এলাকার মধ্যে স্থানান্তর সী্মাবদ্ধ করতে পারে।

এক পৌরসভা(রেজ্জনে) থেকে অন্য পৌরসভায়(রেজ্জনে) যাওয়ার ক্ষেত্রে এখনো নিষেধাজ্ঞা বহাল রয়েছে। সাধারনভাবে যে যেখানে বসবাস করে সেখানেই অবস্থান করতে হবে। যেসকল কারণে ভিন্ন পৌরসভায়(রেজ্জনে)স্থানান্তর করা সম্ভব হবে, সেগুলো হলো : কর্মস্থলের জন্য-অবশ্যই প্রমাণ সাপেক্ষ; অপরিহার্য প্রয়োজনীয়তার ক্ষেত্রে; স্বাস্থ্যসংক্রান্ত কারণে অথবা স্বীয় আবাসস্থলে পৌছানোর জন্য। এই নিয়ম ২জুন পর্যন্ত বলবৎ থাকবে।

৩জুন থেকে কোনোরকম সীমাবদ্ধতা ছাড়াই এক পৌরসভা(রেজ্জনে) থেকে অন্য পৌরসভায়(রেজ্জনে)স্থানান্তর করা যাবে। তবে কর্তৃপক্ষ বিবেচনা সাপেক্ষে কোভিড-১৯ ভাইরাসের বিস্তার রোধের জন্য নির্দিষ্ট কোন এলাকার মধ্যে স্থানান্তর সী্মাবদ্ধ করতে পারে।

জনসমাগমস্থলে বা সকলের জন্য উন্মুক্ত স্থানে সমাবেশ সৃষ্টি করা যাবেনা। আপনার অবস্থানকৃত পৌরসভা(রেজ্জনে) ও যে পৌরসভায়(রেজ্জনে)আপনি যেতে ইচ্ছুক - যেক্কেত্রেই হোকনা কেন সংশ্লিষ্ট এলাকার ওয়েবসাইটের পরামর্শ মোতাবে্ক স্থানান্তর করার পরামর্শ প্রদান করা যাচ্ছে।


কোভিদ-১৯ সংক্রান্ত নতুন নিয়ম ও সীমাবদ্ধতা : ৪মে থেকে ১৮মে ২০২০

২৬ এপ্রিল ২০২০ তারিখে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ঘোষিত নতুন ডিক্রি অনুযায়ী ৪মে থেকে ১৮মে পর্যন্ত করোনাভাইরাস সংক্রান্ত জরুরি অবস্থার কারণে গৃহীত পরিবর্তিত নিয়মাবলী ও আচরণবিধি কার্যকর হবে।

এখনো কি দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে ?

এক ব্যক্তি হতে অন্য ব্যক্তিকে বাধ্যতামূলকভাবে অন্তত এক মিটার দূরত্বে অবস্থান করতে হবে, একই সাথে মাস্ক ও হাতমোজাসহ অন্যান্য ব্যক্তিগত প্রতিরক্ষাসামগ্রী ব্যবহারের পরামর্শ আগের মতই বহাল থাকবে। জনসাধারণের জন্য প্রবেশযোগ্য বদ্ধ স্থানে মাস্ক অবশ্যই পড়তে হবে, এর মধ্যে গণপরিবহনও অন্তর্ভুক্ত।

সব ধরণের স্থানান্তর কি অনুমোদিত?

কাজের জন্য, স্বাস্থ্যগত কারণ, অপরিহার্য প্রয়োজনীয়তার ক্ষেত্রেই কেবল একই এলাকার মধ্যে চলাফেরা করা যাবে, এ ব্যতীতও সমাবেশ সৃষ্টি না করে ও ব্যক্তিগতভাবে অন্তত এক মিটার দূরত্ব বজায় রেখে এবং মাস্ক ব্যবহারপূর্বক আত্বীয়স্বজনের সাথে দেখা করার নতুন নিয়ম সংযোজন করা হয়েছে। কেবল কাজের জন্য, স্বাস্থ্যগত কারণ, অপরিহার্য প্রয়োজনীয়তার ক্ষেত্রেই ভিন্ন এলাকার মধ্যে স্থানান্তরিত হওয়া যাবে। অপরদিকে নিজ আবাসস্থলে(দোমিচিলিও/রেসিডেন্স) প্রবেশের নিমিত্তেও স্থানান্তর অনুমোদিত।

তদুপরি কোভিদ-১৯ সম্পর্কিত জরুরি অবস্থার সর্বশেষ তথ্যের জন্য সংশ্লিষ্ট এলাকার জন্য নির্ধারিত ফোন নম্বরে যোগাযোগের পরামর্শ দেয়া যাচ্ছে।

নতুন স্বীয়প্রত্যয়নপত্রের ফর্ম কোনটি?

ইতালিতে প্রবেশের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

নির্দিষ্ট স্বীয়প্রত্যয়নপত্রের ফর্মটিই স্থানান্তরের স্বীয়প্রত্যয়নপত্রের ফর্ম হিসেবে বিবেচ্য হবে।

 

আমি কি পার্কে যেতে পারি?

একে অপরেরে কাছ থেকে অন্তত এক মিটার দূরত্ব বজায় রেখে বাচ্চাদের খেলার স্থান বদ্ধ রাখার নিশ্চয়তা প্রদানপূর্বক পাব্লিক পার্ক, বাগান ও ভিলাতে যাওয়ার অনুমতি প্রদান করা হয়েছে। তবে যদি পার্কের মধ্যে সুরক্ষা সংক্রান্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করা না যায় তাহলে মেয়র পার্কে প্রবেশের ক্ষেত্রে আবার নিষেধাজ্ঞা প্রয়োগ করতে পারেন।

ক্রীড়া ও শরীরচর্চা কার্যক্রম চালিয়ে যেতে পারি?

এককভাবে করার অনুমোদন রয়েছে, তবে নাবালকের সঙ্গী হিসেবে, বা সম্পূর্ণরূপে অ-স্বাবলম্বী কোন ব্যক্তির সাহায্যকারী হিসেবে আন্তঃব্যক্তিক নিরাপদ দূরত্বে অবস্থান করে ক্রীড়া ও শরীরচর্চা কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবে।

ধর্মীয় উৎসব/রীতিনীতি ও অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া পালন করা যাবে?

ধর্মীয় উৎসব/রীতিনীতি উদযাপনের ক্ষেত্রে কেবল অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া পালনের অনুমতি দেয়া হয়েছে, যেখানে পরিবারের নিকটবর্তী সর্বোচ্চ ১৫ জন সদস্য উপস্থিত থাকতে পারবে এবং সম্ভব হলে উন্মুক্ত স্থানে সম্পাদনের পরামর্শ দেয়া যাচ্ছে (অবশ্যই মাস্ক পড়া ও নিরাপদ দূরত্ব অবলম্বন বাধ্যতামূলক)।

ফাস্ট ফুড বা রেস্টুরেন্টে যেতে পারি?

হ্যা, কেবল পূর্বে অর্ডারকৃত দ্রব্য সংগ্রহের জন্য যাওয়া যাবে। বাসায় খাবার সরবরাহ করার জন্য বা পূর্বে অর্ডারকৃত খাবার সংগ্রহের কার্যাবলী সম্পাদনের জন্যই কেবল রেস্টুরেন্ট খোলা রাখা যাবে। কিন্তু রেস্টুরেন্টের ভিতরে বসে কোন খাদ্যদ্রব্য খাওয়া যাবেনা। 

আমার জ্বর হলে কি করতে হবে?

জ্বর ৩৭.৫ ডিগ্রি হলে ও শ্বাসতন্ত্রের সমস্যাজনিত কোন লক্ষণ দেখা দিলে কেবল বাসাতে থাকার নির্দেশই দেয়া হচ্ছেনা একইসাথে নিজের ব্যক্তিগত ডাক্তারের সাথে অতিসত্ত্বর যোগাযোগ করার নির্দেশ প্রদান করা যাচ্ছে।

মোবাইলে মেসেজের মাধ্যমে বা ই-মেইলের দ্বারা কি আমি আমার ব্যক্তিগত ডাক্তারের কাছ থেকে প্রেসক্রিপশান পেতে পারি?

১৯মার্চ ২০২০ এর অধ্যাদেশ অনুযায়ী কাগজের প্রেসক্রিপশন নেয়ার জন্য স্বশরীরে উপস্থিত না হয়ে ব্যক্তিগত ডাক্তারের কাছ থেকে ইলেক্ট্রনিক্স প্রেসক্রিপশানের নম্বরটি মেসেজ বা ই-মেইলের মাধ্যমে নেওয়া যাবে। ফার্মাসিস্ট একবার রোগীর ইলেক্ট্রনিক্স প্রেসক্রিপশানের নম্বরটি ও স্যানিটারি কার্ডে উল্লিখিত কোদিসে ফিস্কালের নম্বরটি সংগ্রহ করামাত্র ওষুধ সরবরাহ করতে পারেন।

জাতীয় সীমাবদ্ধ ব্যবস্থায় নারী-নির্যাতন বিরোধী কেন্দ্রগুলির কার্যক্রম কি বন্ধ থাকবে?

না। স্টকিং ও নির্যাতনের স্বীকার নারীদের একাকীবোধ করার কোন কারণ নেই ও তারা যেকোন সাহায্য ও সহযোগিতার জন্য ফ্রি ফোন নম্বর ১৫২২ (২৪ঘণ্টা সক্রিয়) এ যোগাযোগ করতে পারবে। অপরদিকে ১১ মার্চের ডিক্রি অনুসারে নির্যাতনের ঘটনা “অপরিহার্য প্রয়োজনীয়তা’র” পরিস্থিতির অন্তর্ভুক্ত, যা নির্যাতিত নারীদের নির্যাতন বিরোধী কেন্দ্রে যাওয়ার জন্য অনুমতি প্রদান করে।

বিশ্বমহামারীর কারণে কোন ব্যক্তি মানসিক চাপের(স্ট্রেস) সম্মুখীন হলে তার জন্য মনস্ত্বাত্তিক সমর্থনের কোন উদ্যোগ কি গৃহীত হয়েছে?

মনস্ত্বাত্তিক সমর্থনের জন্য ২৭ এপ্রিল হতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও সুরক্ষা বিভাগ কর্তৃক টোল ফ্রি ৮০০.৮৩৩.৮৩৩ এই নম্বরটি সক্রিয় করা হয়েছে। বিদেশ থেকে ০২.২০২২৮৭৩৩ এই নম্বরটিতে ৮টা হতে ২৪টা পর্যন্ত যোগাযোগ করা যাবে। বধিরদের সাথে যোগাযোগের ব্যবস্থাও রয়েছে।

আরো ভালোভাবে জানার জন্য নতুন করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের Numero verde di supporto psicologico এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে পারেন।

JumaMap – COVID-19 in Italy · [BAMBARA] Nuove regole e limitazioni – dal 4 al 18 maggio 2020

ফোকাস : ইতালিয়ান নাগরিকদের বিদেশ প্রত্যাবর্তন ও বিদেশী নাগরিকদের ইতালিতে প্রত্যাবর্তন

এখান হতে ডাউনলোড করুন :

১। ইতালির অভ্যন্তরে স্থানান্তরের নিমিত্তে স্বীয় প্রত্যয়নপত্র। ২৬/০৩/২০২০ তারিখে আপডেটকৃত নতুন ফর্ম NUOVO MODELLO 26.03.2020

২। ভ্রমনের উদ্দ্যেশ্যে স্বীয় প্রত্যয়নপত্র। ফর্ম MODELLO

  • ইতালিতে প্রবেশের জন্য ২৮মার্চ হতে প্রযোজ্য আইনসমূহ কি কি?
  1. ১। ভ্রমনকারী দায়ী থাকবে : বোর্ডিং পাসের সময় “ভ্রমনের উদ্দ্যেশ্যে স্বীয় প্রত্যয়নপত্রটি” জমা দিতে হবে(ফর্মের লিংক) এবং ভ্রমনের কারণ বিশদভাবে উল্লেখ করতে হবে : (স্বাস্থ্য, কাজ,অপরিহার্য প্রয়োজনীয়তা), পরবর্তী ১৪দিন যেখানে বিচ্ছিন্নভাবে(কোয়ারেন্টাইন) থাকবে তার ইঙ্গিত দিতে হবে, নিজস্ব বা প্রাইভেট যে পরিবহনের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট স্থানে যাবে ও একটি ফোন নম্বর(মোবাইল ফোন নম্বরও হতে পারে) সংযুক্ত করতে হবে। “অপরিহার্য প্রয়োজনীয়তা” বলতে কি বোঝানো হচ্ছে তা আমাদের ওয়েবসাইটের প্রশ্নোত্তর বিভাগে ইতিমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে।link al modulo 
  2. ২। যিনি বিদেশ থেকে প্রত্যাবর্তন করবেন তিনি পাব্লিক পরিবহন ব্যবহার করতে পারবেন না, কিন্তু শুধু প্রাইভেট পরিবহন ব্যবহারের অনুমতি পাবেন(যেমন : নিজস্ব গাড়ি বা বিমানবন্দরে বা বন্দরে বা স্টেশনে কেউ নিতে আসতে পারবে অথবা উক্ত ব্যক্তি কোন গাড়ি ভাড়া করতে পারবে, এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ কোন ট্যাক্সি বা কোন প্রাইভেট কার( ড্রাইভারসহ) ভাড়া করার অনুমোদন পাবেন)।   
  3. ৩। ইতালিতে প্রবেশকৃত সকলকেই কোয়ারেন্টাইন পালন করতে হবে। অর্থাৎ ব্যক্তিগত পরিবহনের মাধ্যমে ঢুকলেও এনিয়ম প্রযোজ্য। প্রত্যাবর্তনের পরে যাদের কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে তারা চাইলে কোয়ারেন্টাইনের সময়সীমা আরো ৭২ ঘন্টা (অতিরিক্ত ৪৮ ঘন্টা বর্ধনযোগ্য) বাড়াতে পারেন, অন্যথায় চূড়ান্ত প্রয়োজন পর্যন্ত সময়সীমা নির্ধারণ করা যাবে। 
  4. ৪। যে পরিবহনের মাধ্যমেই বিদেশ থেকে ফেরত আসুক না কেন, ইতালিতে প্রবেশ করা মাত্র অবশ্যই সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের যোগ্য স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে হবে। 
  5. ৫। কোয়ারেন্টাইনের জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি নিজ বাসভবনের ব্যতীত অন্য কোন স্থানও নির্ধারণ করতে পারেন যা সম্পূর্ণভাবে ব্যক্তির পছন্দের উপর নির্ভরশীল।
  6. ৬। যদি ইতালিতে প্রত্যাবর্তনকারীর কোয়ারেন্টাইনে থাকার জায়গা না থাকে বা নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছানো অসম্ভব হয়(যদি কেউ নিতে না আসে বা থাকার জন্য কোন আবাসিক হোটেলের ব্যবস্থা করতে না পারে), সেক্ষেত্রে নাগরিক সুরক্ষা বিভাগ দ্বারা নির্বাচিত স্থানে নিজের খরচে কোয়ারেন্টাইন পালন করতে হবে।
  7. ৬। যদি ইতালিতে প্রত্যাবর্তনকারীর কোয়ারেন্টাইনে থাকার জায়গা না থাকে বা নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছানো অসম্ভব হয়(যদি কেউ নিতে না আসে বা থাকার জন্য কোন আবাসিক হোটেলের ব্যবস্থা করতে না পারে), সেক্ষেত্রে নাগরিক সুরক্ষা বিভাগ দ্বারা নির্বাচিত স্থানে নিজের খরচে কোয়ারেন্টাইন পালন করতে হবে।

 

অবকাঠামো ও পরিবহন মন্ত্রণালয় এর সাথে পরামর্শকরণপূর্বক স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এর অধ্যাদেশ অনুযায়ী নিম্নোক্য বিষয়াদি উত্থাপিত হয় : 

  • আমি বিদেশে অবস্থানরত একজন ইতালিয়ান নাগরিক বা ইতালির রেসিডেন্সধারী একজন বিদেশী, আমি কি ইতালিতে প্রত্যাবর্তন করতে পারব?

চূড়ান্ত/অপরিহার্য প্রয়োজন থাকলে পারবেন। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, একজন ইতালিয়ান নাগরিক বা ইতালির রেসিডেন্সধারী একজন বিদেশী যদি সাময়িকভাবে বিদেশে অবস্থান করে(ভ্রমন, ব্যবসা বা অন্য কোন কারণ)। একইরকমভাবে ইতালিতে প্রত্যাবর্তনের ক্ষেত্রে ইতালিয়ান নাগরিকেরা বিদেশের চাকরি বা পড়াশোনা স্থায়ীভাবে ছেড়ে দিতে বাধ্য থাকবেন(কেননা বর্তমান জরুরী অবস্থার কারণে বিদেশে অবস্থানরত কেউ চাকুরীচ্যুত হতে পারে, বাসা ছেড়ে দিতে হতে পারে, কারো পড়াশোনা স্থায়ীভাবে বিঘ্নিত হতে পারে)।

  • আমি বর্তমানে ইতালিতে অবস্থানরত একজন বিদেশী নাগরিক, আমি কি আমার নিজ দেশে প্রত্যাবর্তন করতে পারব?

প্রত্যাবর্তন অপরিহার্য বিবেচিত হলে পারবেন, যেমন ইতালিয়ান নাগরিকদের ক্ষেত্রেও বিদেশ থেকে ফিরে আসার একই নিয়ম প্রযোজ্য। তবে সাময়িকভাবে চাকুরিচ্যুতি বা বিশেষ ক্ষেত্রে কাজ চলমান থাকলে স্থানান্তর অনুমোদিত হবেনা। সীমান্ত অতিক্রমের জন্য প্রয়োজনীয় স্থানান্তর সম্পর্কিত স্বীয় প্রত্যয়নপত্র সাথে থাকতে হবে এবং এক্ষেত্রে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রকাশিত স্বীয় প্রত্যয়নপত্রের ফর্ম ব্যবহার করতে হবে।

গন্তব্যস্থান কর্তৃক ভাইরাস রোধের জন্য গৃহীত ব্যবস্থাসমূহ সম্পর্কে ভ্রমনের পূর্বেই যাচাই করার সুপারিশ করা হচ্ছে। অপরদিকে ইতালিতে অবস্থিত নিজ দেশের দূতাবাসের সাথে যোগাযোগ করার পরামর্শ প্রদান করা যাচ্ছে।

  • আমি বিদেশ থেকে প্রত্যাবর্তন করছি। বিমানবন্দরে, স্টেশনে বা বন্দরে আমাকে কি কেউ নিতে আসতে পারে?

পরিবহনের মালিক যদি আপনার সহ-বসবাসকারী হয় বা আপনার সাথে একই বাসায় থাকে তাহলে কেবল একজন ব্যক্তি যথাযথ সুরক্ষা ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক আপনাকে নিতে আসতে পারবে। এই স্থানান্তর “অপরিহার্য প্রয়োজনীয়তা’র” আওতাধীন হবে, যা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের নির্দিষ্ট ফর্মের সকল অংশ সংশ্লিষ্ট প্রয়োজনীয় তথ্যাদি উল্লেখপূর্বক পূরণ করতে হবে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ পথরোধ করলে তাৎক্ষনিকভাবে ইতালিতে স্বীয় প্রবেশ সম্পর্কিত তথ্যটি প্রতিরক্ষা বিভাগকে প্রদান করতে হবে; যাতে করে উক্ত ব্যক্তির স্বাস্থ্যের প্রতি নজরদারি ও ব্যক্তিগত কোয়ারেন্টাইনের থাকার বিষয়টি নিশ্চিতকরণ সম্ভব হয়। পাশাপাশি কোভিড-১৯ এর সম্ভাব্য যেকোন লক্ষণ প্রকাশিত হলে তা অতিসত্বর স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষকে জানাতে বাধ্য থাকবে।




স্থানচ্যুতি বিধি

করোনাভাইরাস: ভ্রমণের নিয়ম

  1. আমি কি ইতালি চলে যেতে পারি?
    বৈধ কারণ ব্যতীত আপনি বাড়িটি ছাড়তে পারবেন না। সমস্ত ইতালীয় অঞ্চলে চলাচল নিষেধাজ্ঞাগুলি একই রকম এবং 2020 সালের 10 মার্চ থেকে 3 এপ্রিল পর্যন্ত কার্যকর রয়েছে There পুলিশ সেখানে চেক করবে। যারা ভাইরাসের জন্য পৃথক বা পরীক্ষিত ধনাত্মক তাদের জন্য বাড়ি ত্যাগের উপর সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। শ্বাস প্রশ্বাসের সংক্রমণ বা জ্বরের লক্ষণগুলির ক্ষেত্রে .5 37.৫ ডিগ্রির উপরে এটি বাড়িতে থাকার জন্য দৃ strongly়ভাবে সুপারিশ করা হয়, আপনার ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করুন এবং যতটা সম্ভব অন্যান্য ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ সীমাবদ্ধ করুন।
  2. বাড়ি ছেড়ে যাওয়ার বৈধ কারণ কী?
    স্বাস্থ্যের কারণে বা প্রয়োজনের পরিস্থিতিতে আপনি ঘরে বসে কাজ করতে যেতে পারেন। এই প্রয়োজনীয়তাগুলি প্রমাণ করার জন্য, একটি স্ব-ঘোষণাপত্র সম্পন্ন করতে হবে যা পুলিশে সরবরাহ করা ফর্মগুলির উপরে সরাসরি বসে থাকতে পারে। ঘোষণার সত্যতা পরবর্তী চেক সাপেক্ষে।
  3. যে কেউ বাড়ি, বাড়ি বা আবাস থেকে দূরে থাকে সে বাড়িতে আসতে পারে?
    হ্যাঁ, এটি বোঝা যাচ্ছে যে তারপরে আপনি কেবল কাজের প্রয়োজন, প্রয়োজনের পরিস্থিতি এবং স্বাস্থ্যের কারণে সরে যেতে পারেন।
  4. আমি যদি একটি পৌরসভায় থাকি এবং অন্যটিতে কাজ করি তবে কি আমি পিছনে যেতে পারি?
    হ্যাঁ, এটি যদি ব্যবসায়ের প্রয়োজনে যুক্তিযুক্ত একটি পরিবর্তন হয়।
  5. আমি কি গণপরিবহন ব্যবহার করতে পারি?
    কোনও পরিবহন বাধা নেই। সরকারী এবং ব্যক্তিগত পরিবহণের সমস্ত মাধ্যম নিয়মিত পরিচালনা করে।
  6. মুদি কেনার জন্য কি বাইরে যাওয়া সম্ভব?
    হ্যাঁ, এবং এগুলি ধরার দরকার নেই কারণ স্টোরগুলি সর্বদা সরবরাহ করা হবে। পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে কোনও সীমাবদ্ধতা নেই: সমস্ত পণ্য, তাই কেবল প্রাথমিক প্রয়োজনীয় জিনিসগুলিই জাতীয় অঞ্চলগুলিতে প্রচার করতে পারে।
  7. আমরা কি খাবার বাদে অন্য জিনিস কিনতে যেতে পারি?
    হ্যাঁ, তবে কেবল কঠোর প্রয়োজনীয়তার ক্ষেত্রে কেবলমাত্র প্রাথমিক প্রয়োজন সম্পর্কিত পণ্য ক্রয়ের জন্য যা স্থগিত করা যায় না।
  8. আমি কি আত্মীয়দের সাথে খেতে যেতে পারি?
    No, perché non è uno spostamento necessario e quindi non rientra tra quelli ammessi. Inoltre nei giorni festivi e prefestivi, nonchè in quegli altri che immediatamente precedono o seguono tali giorni, è vietato ogni spostamento verso abitazioni diverse da quella principale, comprese le seconde case utilizzate per vacanza.
  9. আমি কি আমার প্রিয় বয়স্কদের, যারা স্বাবলম্বী নয় তাদের সহায়তা করতে যেতে পারি?
    হ্যাঁ, তবে মনে রাখবেন যে প্রবীণরা সবচেয়ে দুর্বল ব্যক্তি এবং তাই তাদের যোগাযোগ থেকে যতটা সম্ভব রক্ষা করার চেষ্টা করুন।
  10. বাইরের বাইরে মোটর ক্রিয়াকলাপ অনুমোদিত?
    E’ vietato l’accesso ai parchi, alle ville, alle aree gioco e ai giardini pubblici, non è consentito svolgere attività ludica o ricreativa all’aperto. Lo sport e le attività motorie svolte negli spazi aperti sono ammessi nel rispetto della distanza interpersonale di un metro esclusivamente in prossimità della propria abitazione . In ogni caso bisogna evitare assembramenti.
  11. আমি কি আমার কুকুরের সাথে বাইরে যেতে পারি?
    হ্যাঁ, এর শারীরবৃত্তীয় প্রয়োজনের দৈনিক ব্যবস্থাপনার জন্য এবং ভেটেরিনারি চেকগুলির জন্য।
  12. যারা সীমাবদ্ধতা সম্মান করেন না তাদের কী হবে?
    La violazione delle prescrizioni è punita con una sanzione amministrativa fino a 3.000 euro. Ma pene più severe possono essere comminate a chi adotterà comportamenti che configurino più gravi ipotesi di reato. E’ vietato trasferirsi spostarsi con mezzi di trasporto pubblici o privati in un comune diverso da quello in cui ci si trova, salvo che per comprovate esigenze lavorative, di assoluta urgenza o di emergenza sanitaria.

https://youtu.be/Y3jDeCG1G5shttps://youtu.be/q8GvFaNUR0ghttps://youtu.be/VdrRojUtjG4https://youtu.be/YDYm2g-gpKohttps://youtu.be/pXVenWV60AEhttps://youtu.be/K2sZcAGIYnkhttps://youtu.be/eGO6Wum1MzIhttps://youtu.be/fHp8SL-9g2Qhttps://youtu.be/FKTpeKDvnUwhttps://youtu.be/I2Rel57m1_4https://youtu.be/aDgCOCHBCk8https://youtu.be/50WzNN5gm5Ahttps://youtu.be/sMuszdu0l1Qhttps://youtu.be/jOszPIw_ctYhttps://youtu.be/PdeCcqXrd_Ihttps://youtu.be/Q-C6UrbrsPAhttps://youtu.be/exp5SXx-va8https://youtu.be/ba_OFCxeZoghttps://youtu.be/Y3jDeCG1G5shttps://youtu.be/q8GvFaNUR0ghttps://youtu.be/VdrRojUtjG4https://youtu.be/eGO6Wum1MzIhttps://youtu.be/K2sZcAGIYnkhttps://youtu.be/Te2FHINPT7ghttps://youtu.be/PdeCcqXrd_Ihttps://youtu.be/Q-C6UrbrsPAhttps://youtu.be/exp5SXx-va8https://youtu.be/ba_OFCxeZoghttps://youtu.be/j5loEOVqoCUhttps://youtu.be/YDYm2g-gpKo

করোনাভাইরাস সংক্রান্ত জরুরি অবস্থায় চলাচলের স্বীয়

কররোনোভোইরোস সংক্রোন্ত জরুরর অবস্থোয় চলোচরলর স্বীয় প্রত্যয়নপত্র(আউরত্োরচরত্ি রিকোৎরিয়রন)

[03/26/2020 নতুন ফর্মটি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন]

ফর্ম পূরণের পদ্ধতিঃ

ডকুমেন্টস

ভিডিও

পডকাস্ট

বাংলা
Italiano English (UK) Français አማርኛ العربية 简体中文 Español ਪੰਜਾਬੀ Русский Af Soomaali Shqip ትግርኛ اردو Wolof বাংলা